স্ত্রীকে হ’ত্যা, সেফটি ট্যাংকে লুকিয়ে রাখল স্বামী

স্ত্রীকে হ’ত্যা, সেফটি ট্যাংকে লুকিয়ে রাখল স্বামী

হ’ত্যার আড়াই মাস পর সেফটি ট্যাংক থেকে এক গৃহবধূর লা’শ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চান্দরা খাজারড্যাগ এলাকার মৃ’ত: আতাব উদ্দিন দেওয়ানের বাগানবাড়ীর সেফটি ট্যাংক থেকে ফরিদা বেগম নামে ওই গৃহবধূর গলিত লা’শ উদ্ধার করে পুলিশ। এঘটনায় নি’হতের স্বামী মুনসুর আলী, তার প্রথম স্ত্রী রেখা বেগম, ছেলে স্বপন মিয়া এবং বাগানবাড়ির মালিকের স্ত্রী খোদেজা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়। নি’হত ফরিদা বেগম পাবনার আতাইকুলা থানার শ্রীপুর গ্রামের মুনসুর আলীর দ্বিতীয় স্ত্রী। মনসুর চান্দরা খাজারড্যাগ এলাকার মরহুম আতাবউদ্দিন দেওয়ানের বাগানবাড়ীর কেয়ারটেকার।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, আড়াই মাস আগে আতাব উদ্দিন দেওয়ানের বাড়ির কেয়ার টেকার মুনসুর তার দ্বিতীয় স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হ’ত্যার পর লাশ সেফটি ট্যাংকিতে লুকিয়ে রেখে তার স্ত্রী অন্যের সাথে চলে গেছে বলে অপপ্রচার চালায়। নি’হত ফরিদার বোন গত ৪ নভেম্বর থানা একটি মামলা দায়ের করলে পুলিশ দুদিন পর মুনসুরের প্রথম স্ত্রী ও ছেলেকে গ্রেফতার করে।

গত মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) রাতে আশুলিয়া থানার শিমুলিয়া দীঘিরপাড় এলাকার একটি বাড়ি থেকে মুনসুরকে গ্রেফতার করে এবং তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী সকালে সেফটি ট্যাংকি থেকে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা লাশ উদ্ধার করে। পরে লাশ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 banglareport71.com