ভাবীকে ঘু`মন্ত অব`স্থা`য় ধ`র্ষণ করতে গিয়ে লি`ঙ্গ হারাল যুবক

ভাবীকে ঘু`মন্ত অব`স্থা`য় ধ`র্ষণ করতে গিয়ে লি`ঙ্গ হারাল যুবক

দেবরের ধ`র্ষণ থেকে বাঁচতে তার পু`রুষা`ঙ্গ কেটে দিলেন ভাবী। মু`মূ`র্ষূ অবস্থায় দেবর মনিরকে (৩০) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে `ভ`র্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় চা`ঞ্চল্যের সৃ`ষ্টি হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাতে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার উচিৎপুরা

ইউনিয়নের জা`ঙ্গালিয়া বুরুমদীপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, ওই গ্রামের জ`নৈক ব্যক্তি গত ছয় বছর যাবত দুবাই থাকেন। তার দুই স`ন্তানসহ স্ত্রী বাড়িতেই থাকেন।

এ সুযোগে ওই নারীর আপন দেবর মনির তার সাথে অ`নৈতি`ক স`ম্পর্ক স্থা`পনের চেষ্টা করে ব্য`র্থ হন। শনিবার

রাতে ওই নারীকে ঘু`মন্ত অব`স্থায় জোরপূ`র্বক ধ`র্ষণ করতে যান তার দেবর। এ সময় ওই নারী আগে থেকে প্র`স্তুত রাখা ব্লে`ড দিয়ে মনিরের পু`রুষা`ঙ্গ কেটে দেন।

ঘটনাটি জানতে পেরে বাড়ির লোকজন দ্রু`ত মনিরকে প্রথমে আড়াইহাজার উপজেলা স্বা`স্থ্য কেন্দ্রে আনে এবং পরে

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভ`র্তি করে। আড়াইহাজার উপজেলা স্বা`স্থ্য কে`ন্দ্রের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা: মনিরুজ্জামান জানান, ‘লি`ঙ্গ`টি দেড় থেকে দুই সে`ন্টিমি`টার পরিমাণ কাটা গেছে এবং প্র`চুর র`ক্তক্ষ`রণ হয়েছে। তাকে এ হাসপাতালে আনলে অ`বস্থা খারাপ

হওয়ায় আমরা ঢাকায় পাঠাই।’ ওই নারী জানান, ‘আমার দেবর আমাকে দী`র্ঘ`দিন ধরে উত্য`ক্ত করে আসছে। আমি বা`ধ্য হয়ে এই কাজ করছি।’

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো: আলমগীর হোসেন জানান, ‘ঘটনা স`ত্য। আমরা এলাকাবাসী সম্ভাব্য কোনো অঘটনের আশংকায় ওই নারীকে নজরদারীতে রেখেছি।’ আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে তিনি কোনো লিখিত অভিযোগ পাননি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 banglareport71.com